বহিস্কার হলেন ওমর ফারুক, যুবলীগের নতুন চেয়ারম্যানের নাম ঘোষণা

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের চেয়ারম্যানের পদ থেকে ওমর ফারুক চৌধুরীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

রোববার (২০ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিনিধি দলের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

৭১ বছর বয়সী ওমর ফারুক যুবলীগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। দুর্নীতিতে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে কয়েক সপ্তাহ ধরে তিনি গণমাধ্যমের শিরোনামে ছিলেন।

ওমর ফারুক চৌধুরীকে বহিষ্কারের বিষয়টি যুবলীগের এক প্রেসিডিয়াম সদস্য নিশ্চিত করেছেন।

বৈঠকে যুবলীগের বর্তমান চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীকে অপসারণ করে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করা হয়েছে ঢাকা-১০ আসনের সাংসদ ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসকে।

যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ মহি গণমাধ্যমকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, এই বৈঠকে প্রবেশের অনুমতি পান নি যুবলীগের পাঁচ প্রধান নেতা। এদের মধ্যে চারজনের ওপর গণভবনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তারা হলেন- সংগঠনের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল হক মারুফ, নুরন্নবী চৌধুরী শাওন, ড. মীজানুর রহমান ও আতিয়ার রহমান দিপু।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হারুনুর রশীদের নেতৃত্বে বৈঠকে উপস্থিত রয়েছেন প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ শামসুল আবেদীন, শহিদ সেরনিয়াবাত, মজিবুর রহমান চৌধুরী, মো. ফারুক হোসেন, মাহবুবুর রহমান হিরন, আবদুস সাত্তার মাসুদ, অ্যাডভোকেট বেলাল হোসাইন, আলতাব হোসেন বাচ্চু, চয়ন ইসলাম, ড. আহম্মেদ আল কবির, মো. সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, আবুল বাশার, মোহাম্মদ আলী খোকন, অধ্যাপক এবিএম আমজাদ হোসেন, আনোয়ারুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার নিখিল গুহ, শাহজাহান ভূইয়া মাখন, অ্যাডভোকেট মোতাহার হোসেন সাজু, ডা. মোখলেছুজ্জামান হিরু, যুগ্ম সম্পাদক মহিউদ্দিন আহম্মেদ মহি, সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম জাহিদ, আমির হোসেন গাজী, মুহা. বদিউল আলম, ফজলুল হক আতিক, আবু আহম্মেদ নাসিম পাভেল, আসাদুল হক, এমরান হোসেন খান ও আজহার উদ্দিন।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও যুবলীগের সাবেক চেয়ারম্যান আমির হোসেন আমু এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন